,

৪৭ হাজার ছাড়াল করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা– দৈনিক জনসংযোগ

৪৭ হাজার ছাড়াল করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা

৪৭ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে । আর এতে আক্রান্ত হয়েছে ৯ লাখ ৩৫ হাজার ১৯৭ জন।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) ওয়ার্ল্ডোমিটারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, আক্রান্তের সংখ্যায় অনেক আগেই চীনকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার (১ এপ্রিল) দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ৪৯ জন। এখন পর্যন্ত এটাই যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এ নিয়ে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ১০২।

গোটা দেশের প্রায় ৪০ শতাংশ রোগীই এ অঙ্গরাজ্যের। বুধবার এ অঞ্চলে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৯১৭ জন। এরপর নিউ জার্সিতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১৯ হাজার মানুষ, মারা গেছেন ২৬৭ জন।দেশটিতে করোনায় সবচেয়ে বেশি ভুগছে নিউ ইয়র্ক।

মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের ওপরে শুধু ইতালি (১৩ হাজার ১৫৫ জন) ও স্পেন (৯ হাজার ৩৮৭ জন)। আর আক্রান্তের সংখ্যায় সবার ওপরেই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

তবে হঠাৎ করেই তৃতীয় হটস্পট হয়ে উঠেছে মিশিগান। এ অঙ্গরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭৮ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩৭ জন। এ অঞ্চলে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে সাত হাজারেরও বেশি মানুষ।

১ এপ্রিল দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬১১৩ জন আর মারা গেছেন ১৫০ জন, যা একদিনে করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর রেকর্ড। জার্মানিতে এখন পর্যন্ত ৭৭৯২১ জন করোনাভাইরারে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ৯২৫ জন।

ভারতে বুধবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৪৩৭ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এটাই একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। এদিন সেখানে মারা গেছেন অন্তত ছয়জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪১।

ফলে দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু আগের দিনের রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে। এদিকে করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত ইউরোপের দেশ স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৯২৩ জনের প্রাণ গেছে।

দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে বুধবার (১ এপ্রিল) একদিনে প্রাণঘাতী করোনায় মারা গেছেন ৭২৭ জন। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা ইতালির। এ নিয়ে ইতালিতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে মোট দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ১৫৫।

স্পেনে একদিনে রেকর্ড ৯২৩ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা, যা আগের দিনের তুলনায় বেশি। এর আগে বুধবার দেশটিতে ৮৬৪ জনের প্রাণহানি ঘটে। আর তার আগের দিন মঙ্গলবার মৃত্যু হয় ৮৪৯ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে করোনাভাইরাসে মোট ৯ হাজার ৩৮৭ জনের মৃত্যৃ হয়েছে।